খালেদা জিয়া মৃত্যুশয্যায়, জেলা বিএনপিতে ফুল উৎসব!

নারায়ণগঞ্জ মেইল: বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি’র চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া দীর্ঘদিন যাবত অসুস্থ। নেত্রীর উন্নত চিকিৎসার্থে বিদেশ পাঠানোর দাবিতে দেশব্যাপী বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রাম করছে দলটির নেতাকর্মীরা। কিন্তু নারায়নগঞ্জে দেখা যাচ্ছে ভিন্নচিত্র। নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি’র নেতাকর্মীরা দলীয় চেয়ারপার্সনকে মৃত্যুশয্যায় দেখে রীতিমতো ফুল উৎসবে মেতে উঠেছেন। প্রায় প্রতিদিনই জেলা বিএনপি’র আওতাধীন বিভিন্ন থানায় নেতাকর্মীরা ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন একে অন্যকে। নবগঠিত বিভিন্ন থানা কমিটির নেতারা জেলা বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক নাসির উদ্দিন এবং সদস্য সচিব অধ্যাপক মামুন মাহমুদকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন। তাছাড়া নতুন কমিটির আহ্বায়ক এবং সদস্য সচিবদের বিভিন্ন ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড বিএনপি ও তাদের সংগঠনের নেতা-কর্মীরা ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন। এতে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে তৃণমূল নেতাকর্মীরা জানিয়েছেন, আমাদের নেত্রী আমাদের মা বেগম খালেদা জিয়া আজ জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়ে। এ মুহূর্তে নতুন কমিটি পাওয়া নেতারা ফুলের শুভেচ্ছাটা এড়িয়ে গেলেও পারতেন। কারণ এখন আমাদের আনন্দ করার সময় না।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গত ২১ জানুয়ারি নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি’র আওতাধীন পাঁচটি থানা এবং পাঁচটি পৌরসভার আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়। জেলা বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক নাসির উদ্দিন এবং সদস্য সচিব অধ্যাপক মামুন মাহমুদ এসব কমিটির অনুমোদন দেন।

কমিটি ঘোষণার পরে নেতাদের মাঝে ফুলেল শুভেচ্ছা বিনিময়ের ধুম পড়ে যায়। বিএনপির বহিস্কৃত নেতা অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকারকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানায় সিদ্ধিরগঞ্জের বিভিন্ন নেতারা। এছাড়াও বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক নজরুল ইসলাম আজাদকে আড়াইহাজার উপজেলা বিএনপি, আড়াইহাজার পৌরসভা বিএনপি ও গোপালদী পৌরসভা বিএনপির নেতারা ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়েছে। সোনারগাঁও উপজেলা বিএনপি’র নবগঠিত আহ্বায়ক কমিটির পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত হয় গত শুক্রবার ২৮ জানুয়ারি। এদিন ফুলের বন্যা বয়ে যায়। সংগঠনের আহ্বায়ক আজহারুল ইসলাম মান্নান এবং সদস্য সচিব মোশাররফ হোসেন সকল সদস্যদের ফুল দিয়ে বরণ করেন। সোনারগাঁ থানা বিএনপি’র বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা মান্নান এবং মোশারফকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।

এছাড়াও বিভিন্ন থানা, উপজেলা ও পৌরসভা কমিটির নেতারা জেলা বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক নাসির উদ্দিন এবং সদস্য সচিব অধ্যাপক মামুন মাহমুদকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানাচ্ছে নিয়মিত। নেতাকর্মীদের এই ফুল দেয়া নেয়া দেখে তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হচ্ছে। যেখানে সারা দেশের বিএনপির নেতাকর্মীরা তাদের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং উন্নত চিকিৎসার দাবিতে নানা কর্মসূচি পালন করছে, সেখানে নারায়ণগঞ্জ বিএনপির নেতারা ফুল উৎসবে মেতে উঠেছেন। তৃণমূলের মতে এসব নেতারা খালেদা জিয়ার মুক্তি চান না। আর যারা খালেদা জিয়ার মুক্তি চান না তারা কোনদিনও শহীদ জিয়ার আদর্শের সৈনিক হতে পারেন না। আর তাই অবিলম্বে এসব বন্ধ করার দাবি জানিয়েছেন তারা।

উল্লেখ্য, গত ২১ জানুয়ারি নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি’র আওতাধীন পাঁচটি থানা এবং পাঁচটি পৌরসভার আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়। জেলা বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক নাসির উদ্দিন এবং সদস্য সচিব অধ্যাপক মামুন মাহমুদ এসব কমিটির অনুমোদন দেন।

কমিটিতে রূপগঞ্জ থানায়- মাহফুজুর রহমান হুমায়ুনকে আহ্বায়ক, বাশির উদ্দিন বাচ্চুকে সদস্য সচিব, সোনারগাঁও থানায়- আজহারুল ইসলাম মান্নানকে আহ্বায়ক, মোশারফ হোসেনকে সদস্য সচিব, আড়াইহাজারে- ইউসুফ আলী মেম্বারকে আহ্বায়ক, জুয়েল আহমেদকে সদস্য সচিব, সিদ্ধিরগঞ্জ থানায়- আব্দুল হাই রাজুকে আহ্বায়ক, শাহ আলম হীরাকে সদস্য সচিব, ফতুল্লায়- জাহিদ হাসান রোজেলকে আহ্বায়ক, শহিদুল ইসলাম টিটুকে সদস্য সচিব, সোনারগাঁও পৌরসভায়- শাহজাহান মেম্বারকে আহ্বায়ক, কমিশনার মোতালেব হোসেনকে সদস্য সচিব, কাঞ্চন পৌরসভায়- মজুবর রহমান ভুঁইয়াকে আহ্বায়ক, হামিদুল হক খানকে সদস্য সচিব, তারাব পৌরসভায়- নাসিরউদ্দিনকে (জেলার ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক) আহ্বায়ক, জাকির হোসেন রিপনকে সদস্য সচিব, গোপালদী পৌরসভায়- সামসুল হক মোল্লাকে আহ্বায়ক, মুশফিকুর রহমান মিলনকে সদস্য সচিব, আড়াইহাজার পৌরসভার- মো. রূপচান মিয়াকে আহ্বায়ক, সালাহউদ্দিন আহমেদ ডালিমকে সদস্য সচিব হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments

নারায়ণগঞ্জ মেইলে এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

সর্বশেষ

You cannot copy content of this page