Home রাজনীতি গিয়াসউদ্দিনেই যতো মাথাব্যাথা!

গিয়াসউদ্দিনেই যতো মাথাব্যাথা!

গিয়াসউদ্দিনেই যতো মাথাব্যাথা!

নারায়ণগঞ্জ মেইল: নারায়ণগঞ্জে রাজনীতির উত্তাপ বাড়িয়ে দিয়েছেন সাংসদ শাামীম ওসমান। বিএনপির মিছিলের সময়ে সাংসদের গাড়ি নিয়ে অবস্থানের বিষয়টি আলোচিত হচ্ছে সর্বত্র। ইতিপূর্বে নারায়ণগঞ্জের বিএনপিকে নিয়ে তেমন একটা মাথা না ঘামানো প্রভাবশালী নেতা শামীম ওসমান কি কারণে এমনটা করলেন তা নিয়ে নারায়ণগঞ্জের রাজনৈতিক অঙ্গণে চলছে জল্পনা কল্পনা। অনেকে বিষয়টিকে রঙ মাখিয়ে ভিন্নভাবেও ্উপস্থাপনের চেষ্টা করছে। তবে বাজনৈতিক বোদ্ধারা মনে করেন, এতোদিন যারা নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির নেতৃত্বে ছিলেন তারা সবাই ছিলেন ওসমান পরিবারের অনুগত। তাই শামীম ওসমানকে তাদের নিয়ে খুব একটা ভাবতে হয়নি। কিন্তু যখনই জেলা বিএনপির নেতৃত্ব সাবেক এমপি মো: গিয়াসউদ্দিনকে দেয়া হলো, তখন থেকেই চিন্তায় পরে যান এই প্রভাবশালী সাংসদ। কারণ শামীম ওসমানকে হারিয়ে ্এমপি হওয়ার অভিজ্ঞতা কেবল গিয়াসউদ্দিনেরই আছে। তাই গিয়াসউদ্দিনকে নিয়েই তার যতো মাথাব্যাথা।

সূত্রে প্রকাশ, গত ১৫ নভেম্বর নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির পুরাতন কমিটি ভেঙ্গে নতুন কমিটি দেয়া হয়। সে কমিটিতে আহবায়ক করা হয় সাবেক এমপি বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: গিয়াসউদ্দিনকে। জাঁদরেল এই নেতাকে দায়িত্ব দেয়ায় উজ্জীবিত হয়ে উঠে বিএনপির তৃণমূল নেতাকর্মীরা। এতোদিন অনেক নেতাকেই এ পদে দায়িত্ব দেয়া হলেও তৃণমূলকে চাঙ্গা করতে সকলেই ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছেন। তাই এবার অভিজ্ঞ এই নেতাকে দায়িত্ব দিয়ে শেষ চেষ্টা করছে বিএনপি।

এদিকে গিয়াসউদ্দিন জেলা বিএনপির আহবায়ক হওয়ায় চ্যালেঞ্জের মুখে পরেছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ একেএম শামীম ওসমান। কারণ সামনেই দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। আর এ আসনে শামীম ওসমানের জন্যে মাথাব্যাথার কারণ হয়ে উঠতে পারেন মো: গিয়াসউদ্দিন- এমনটাই মনে করছে তৃণমূল নেতাকর্মীরা।

সূত্রে মতে, বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য মো: গিয়াসউদ্দিনের রয়েছে এ আসনে শামীম ওসমানকে পরাজিত করার অভিজ্ঞতা। ২০০১ সালের অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে মো: গিয়াসউদ্দিন নারায়য়ণগঞ্জ-৪ আসনে আওয়ামীলীগের প্রার্থী শামীম ওসমানকে হারিয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। যদিও এ নির্বাচনের কিছুদিন আগে পর্যন্ত গিয়াসউদ্দিন আওয়ামীলীগেরই প্রভাবশালী নেতা ছিলেন। এ আসন থেকে আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন পেতে ব্যর্থ হয়ে তিনি নির্বাচনের কিছুদিন আগে বিএনপিতে যোগ দেন এবং বিএনপির দলীয় মনোনয়ন পেয়ে আওয়ামীলীগের নৌকার প্রার্থী শামীম ওসমানকে পরাজিত করে এমপি নির্বাচিত হন।

সূত্র বলছে, ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ এলাকায় মো: গিয়াসউদ্দিনের রয়েছে ব্যাপক জনপ্রিয়তা। বিএনপির নেতাকর্মীরা মেেন করেন বাকিদের চেয়ে গিয়াস্উদ্দিনের রাজনৈতিক সক্ষমতা অনেক বেশি। দলীয় ভোট ছাড়াও নিরপেক্ষ অনেক মানুষের পছন্দে রয়েছেন তিনি। বিশেষ করে এ অঞ্চলে শামীম ওসমান বিরোধীদের প্রথম পছন্দ মো: গিয়াসউদ্দিন। তাদের মতে এই আসনে শামীম ওসমানকে ঠেকানোর সামর্থ রয়েছে কেবল গিয়াসউদ্দিনেরই। আর তাই তাকে নিয়ে ভাবতেই হচ্ছে বর্তমান সাংসদ একেএম শামীম ওসমানকে।

Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments