ফতুল্লায় স্ত্রীকে হত্যার দায় স্বীকার করে ঘাতক স্বামী মোক্তার আলীর জবানবন্দি

নারায়ণগঞ্জ মেইল: ফতুল্লায় স্ত্রী ফাতেমা আক্তার রেখা (৪৫) কে হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন ঘাতক স্বামী মোক্তার আলী ( ৪৭ )।

 

বৃহস্পতিবার ( ৮ ডিসেম্বর ) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নুসরাত সাহারা বীথি’র আদালত তার জবানবন্দি নেন। মোক্তার আলী ( ৪৭ ) নারায়ণগঞ্জ সদর থানাধীন গোগনগর ইউনিয়নের বারিরটেক এলাকার মৃত মোকসেদ আলী ছেলে। আর নিহত রেখা ফতুল্লা থানাধীন কাশিপুর ইউনিয়নের হাজীবাড়ী স্কুল রোড সংলগ্ন এলাকার মৃত আব্দুল আজিজের মেয়ে।

 

নারায়ণগঞ্জ কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক ওসি মো. আসাদুজ্জামান জানান, মোক্তার আলী তার সাবেক স্ত্রী রেখাকে খুনের ঘটনা বর্ণনা করে আদালতে অপরাধ স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন। জবানবন্দি শেষে তাকে কারাগারে পাঠান আদালত।

 

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফতুল্লা মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবু হানিফ জানান, গত (২০ নভেম্বর) কাশিপুর হাজীপাড়া স্কুল গলির নিজ বাড়ি থেকে ফাতেমা আক্তার রেখা (৪৫) মরদেহ উদ্ধার করা হয়। রেখার মাথার পেছনে ও মুখে একাধিক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এ ঘটনার পর থেকে তার স্বামী মোক্তার আলী পলাতক ছিলেন। তিনি আরও বলেন, পরে অভিযান চালিয়ে রেখার স্বামী মোক্তার আলীকে গ্রেফতার করি। তিনি আজকে হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন।

 

প্রসঙ্গত, গত (১৯ নভেম্বর) রাতে রেখার মা রাতের খাবার খেয়ে নিজ ঘরের দরজা বন্ধ করে ঘুমিয়ে পড়েন। পরেরদিন (২০ নভেম্বর) সকাল আটটার দিকে তার মা রেখা ডাকতে গেলে ঘরের মধ্যে মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে চিৎকার শুরু করেন। এর পরপরই তারা মোক্তারের ভাড়া বাসায় গিয়ে দেখতে পান মাশরুমকে নিয়ে তিনি পালিয়ে গেছেন।

 

পরে কাশিপুর হাজীপাড়া স্কুল গলির নিজ বাড়ি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়। ময়নাতদন্তে রেখার মাথার পেছনে ও মুখে একাধিক আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়। পরে নিহত ফাতেমা আক্তার রেখার মা সাজেদা বেগম ( ৬২ ) বাদী হয়ে স্বামী মোক্তার আলীকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments

নারায়ণগঞ্জ মেইলে এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

সর্বশেষ